হরিণাকুন্ডুতে অন্তঃস্বত্তা নারীর রহস্যজনক মৃত্যু

33

হরিণাকুন্ডুতে অন্তঃস্বত্তা নারীর রহস্যজনক মৃত্যু

হরিণাকুন্ডু (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু পল্লীতে মরিয়ম (৩৮)নামের এক গর্ভবতী মহিলার রহস্যজনক ভাবে মৃত্যুবরণ করেছে। এটি আত্মহত্যা না হত্যা এই নিয়ে রহস্যের বেড়াজাল সৃষ্টি হয়েছে। নিহত মহিলা হরিনাকুন্ডু উপজেলার রঘুনাথপুর ইউনিয়নের মান্দিয়া গ্রামের জালাল উদ্দিনের স্ত্রী এবং একই উপজেলার হরিণাকুন্ডু পৌরসভার ৭নং ওর্য়াডের দাসপাড়ার ইজ্জত আলী সাপুড়ের মেয়ে৷
স্থানীয় লোকজন এবং স্বজনদের কাছ থেকে জানা যায়, রবিবার রাত ১টার দিকে মরিয়ম বিষপান করলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়। পরে সোমবার সকালে তার মৃত্যু হয়৷ কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, বিষপানে তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে মহিলাটি অন্তঃসত্তা ছিলেন, পোস্ট মর্টামের পরে বিস্তারিত জানা যাবে৷

নিহতের ছেলে জিহাদ (১২) জানায় রাতে মায়ের চিৎকার শুনতে পেয়ে মায়ের কাছে যেয়ে দেখি আব্বা আমার মাকে জোর পূর্বক কিছু খাওয়াচ্ছে। মরিয়মের পিতা ইজ্জত আলী জানান, আমার মেয়েকে শারীরিক নির্যাতন করে মেয়ের মুখে বিষদিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। আমি এর হত্যার ন্যায় বিচার চাই৷ রঘুনাথপুর ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাসুদ আলী বলেন, এদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। মহিলার স্বামী স্ত্রীর গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য স্ত্রীকে জোর চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। এই নিয়ে দুইজনার মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়৷ হরিণাকুন্ডু থানা অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি, প্রাথমিক ভাবে আত্মহত্যা মনে হচ্ছে। তবে ময়না তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here