ধানের চাষ ঠেকাতে এবার বিষ প্রয়োগে বীজতলা বিনষ্ট !

73
ধানের চাষ ঠেকাতে এবার বিষ
প্রয়োগে বীজতলা বিনষ্ট !
স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
বিষ প্রয়োগ করে মানুষ, গরু ছাগল এমনকি পুকুরের মাছ নিধন করার নজীর থাকলেও এবার ধান চাষ ঠেকাতে দুর্বৃত্তরা বিষ প্রয়োহ করে বীজতলা ধ্বংস করে দিয়েছে। ঘটনাটি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ফারাসপুর গ্রামের মাঠে। ফারাসপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে কৃষক আবু সাঈদ জানান, তার মাঠে ১০ বিঘা ধান চাষের জমি রয়েছে। এই জমিতে ইরিবোরো ধান গাছ রোপনের জন্য ৮ শতক জমিতে বীজ ছিল। তার সঙ্গে তাদের গ্রামেরই ওবাইদুর রহমানের ২ বিঘা চাষের জমি রয়েছে। এক মাস হলো বীজতলা তৈরী করে সেখানে ১০০ টাকা কেজি দরে ধানের বীজ কিনে বীজতলা তৈরী করা হয়। গত বৃহস্পতিবার বিকালে তিনি বীজতলায় পানি দিতে গিয়ে দেখেন জমির সব চারা লাল হয়ে যাচ্ছে। এই অবস্থা দেখে হতাশ হয়ে পড়েন। প্রথমে বুঝতে পারছিলেন না কেন এমনটি হচ্ছে। শুক্রবার সকালে মাঠে গিয়ে দেখতে পান গোটা জমির ধানের চারা মারা গেছে। চারাগুলো সোনালী রং ধারন করেছে। তখন বুঝতে পারেন যে কেউ তার জমিতে ঔষধ স্প্রে করে চারা মেরে দিয়েছে। আবু সাঈদ জানান, তিনি বুঝে উঠতে পারছেন না কারা এই জঘন্য কাজটি করেছ। অপর কৃষক ওবাইদুর রহমান জানান, মূলত সাঈদকে ক্ষতিগ্রস্থ করতে এটা করা হয়েছে। যারা কাজটি করেছেন তারা জঘন্যতম কাজ করেছেন। মানুষের ক্ষতি করতে বিষ দিয়ে ফসল নষ্ট করা ঠিক হয়নি। স্থানীয় নিয়ামতপুর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার সাইদুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি খুবই খারাপ হয়েছে। যারাই এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আমা জরুরী বলে তিনি মনে করেন। বিষয়টি নিয়ে কালীগঞ্জ কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা এনায়েত কবির জানান, তারা সংবাদ পেয়ে সরেজমিনে দেখতে যান। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। এভাবে ফসলের ক্ষতি করা খুবই খারাপ কাজ। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। তিনি বলেন, ওই কৃষক যাতে চারা পান সে বিষয়ে কৃষি বিভাগ পদক্ষেপ নেবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here