জাতীয় পরিচয় পত্রে ১৮ বছর হলেই টীকা নিতে পারবে শিক্ষার্থীরা।

116

জাতীয় পরিচয় পত্রে ১৮ বছর হলেই টীকা নিতে পারবে শিক্ষার্থীরা।

কনক হোসেন, হরিণাকুন্ডুঃ
এখন থেকে ১৮ বছরের বেশি বয়সী শিক্ষার্থীরা যে কেউ টিকা পাবেন।
নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী’ ক্যাটাগরির পরিবর্তে ‘১৮ বছর বা তদুর্ধ্ব ছাত্র- ছাত্রী’ ক্যাটাগরি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে
করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত বছরের মার্চ মাস থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা ভাইরস প্রতিরোধী টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। শিক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, ১৮ বা তদুর্ধ্ব শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন করে টিকা নিতে হবে। ১৮ ঊর্ধ্ব শিক্ষার্থীদের টিকা নেওয়ার বিস্তারিত প্রক্রিয়া জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ।
সম্প্রতি মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে জারি করা এক আদেশে শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়।
মন্ত্রণালয় বলছে, এনআইডি সার্ভার থেকে বর্তমানে যে ৫টি তথ্য নেওয়া হয় তার পাশাপাশি পেশার তথ্যও নেওয়া হবে। ১৮-বা তদুর্ধ্ব বয়সের ছাত্র-ছাত্রীদের এনআইডি নিবন্ধনের সময় পেশা হিসেবে শুধু ছাত্র উল্লেখ করতে হবে। ১৮-বা তদুর্ধ্ব বয়সের ছাত্র-ছাত্রীরা এনআইডির ভিত্তিতে সুরক্ষা অ্যাপসের মাধ্যমে সরাসরি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে।
মন্ত্রণালয় আরও বলছে, সুরক্ষা সিস্টেমে শ্রেণি নির্বাচনের ক্ষেত্রে ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী’ ক্যাটাগরির পরিবর্তে ‘১৮ বছর বা তদুর্ধ্ব ছাত্র- ছাত্রী’ ক্যাটাগরি অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে সুরক্ষা টিম প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। ১৮ বছর বা তদুর্ধ্ব বয়সের ছাত্র ছাত্রীদের কোন প্রকার হোয়াইট লিস্টিংয়ের প্রয়োজন পড়বে না। পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য টিকাদান কেন্দ্রে ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের আইডি কার্ড প্রদর্শন করতে হবে।
বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের এনআইডি উইং ১৮ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সের ছাত্র-ছাত্রীদের আবেদনপ্রাপ্তি সাপেক্ষে দ্রুততার সাথে নিবন্ধন সম্পন্ন করে এনআইডি কার্ড ইস্যু করবে বলেও আদেশে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে গত ১৭ আগস্ট জারি করা আদেশে আরও বলা হয়, গত ১৪ জুন জুম প্লাটফর্মে প্রধানমন্ত্রীর কার্যলয়ের মহাপরিচালক-২ অতিরিক্ত সচিব মো. আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিক করোনা টিকাদান কার্যক্রম বাস্তবায়নে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্তগুলো বাস্তাবায়নে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর ও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরকে বলেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here