কালীগঞ্জে চোরের ফেলে যাওয়া গরুর মালিকানা দাবি একাধিক ব্যক্তির, বিপাকে পুলিশ

33

কালীগঞ্জে চোরের ফেলে যাওয়া গরুর মালিকানা দাবি একাধিক ব্যক্তির, বিপাকে পুলিশ

উত্তম কুমার,
কালীগঞ্জ ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে চোরের ফেলে যাওয়া গরুর মালিকানা দাবি করছে একাধিক ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত চারজন ব্যক্তি গরুগুলোর মালিকানা দাবি করেন। এ নিয়ে বিপাকে পড়েছে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ। অবশেষে গরুগুলোর মালিকানা ঠিক করতে ঝিনাইদহ আদালতে প্রতিবেদন পাঠানো হয়। গরুর মালিকানা দাবি করা ব্যক্তিরা হলেন- কালীগঞ্জ পৌর শহরের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের ইমান আলীর তিনটি, মধুগঞ্জ পাড়ার মুন্নার একটি, ঢাকালে পাড়ার পারভেজ রহমান রচি একটি ও পৌরসভার পানির লাইনের কর্মচারী নুর ইসলাম একটি। গত ১৭ আগস্ট দিবাগত রাতে কালীগঞ্জ উপজেলার ৭ নম্বর রায়গ্রাম ইউনিয়নের দুলালমুন্দিয়া গ্রামে চোরেরা ছয়টি গরু ফেলে রেখে যায়। বুধবার সকালে গ্রামে গরুগুলো দেখতে পেয়ে গ্রামবাসী আটকে রাখে। পরে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গরুগুলো থানা পুলিশের হাতে তুলে দেন। গরু পাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ গরু দেখতে আসে। বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত চারজন ব্যক্তি গরুগুলোর মালিকানা দাবি করেন। বিষয়টি নিয়ে দ্বিধাদন্দে পড়ে যায় পুলিশ। পরে বৃহস্পতিবার বিকেলে গরুর মালিকানা নিশ্চিত করতে ঝিনাইদহে আদালতে প্রতিবেদন পাঠানো হয়। সেখান থেকে মালিকরা উপযুক্ত প্রমান দিয়ে গরু গ্রহন করবেন বলে জানায় পুলিশ। কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, চোরে ফেলে যাওয়া গরু উদ্ধারের পর থেকে অনেকে মালিকানা দাবি করছে। এখন অনেকে নিজের গরু দাবি করে দেখতে আসছে। তাই আমরা গরুগুলোর প্রতিবেদন কোর্টে পাঠিয়ে দিচ্ছি। সেখান থেকে তারা প্রমান দিয়ে গরু নিয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here