হরিণাকুন্ডুতে পাটের সোনালী আঁশ ছাড়াতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা।

61

পাটের সোনালী আঁশ ছাড়াতে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা।

কনক আহাম্মেদ, হরিণাকুন্ডু উপজেলা প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুন্ডু উপজেলার পাট চাষিরা এখন পাটের আঁশ ছাড়াতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত পাটের আঁশ ছাড়াচ্ছেন তারা। বাজারে ভাল দাম আর চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় এই এলাকায় দিন দিন বাড়ছে পাটের চাষাবাদ। এদিকে পাট ধোয়া ও শুকানোর কাজ পুরুদমে শুরু হয়েছে জেলার সর্বত্র। সোনালী আাঁশের সোনালী রঙে ভরে গেছে কৃষকের ঘর। মৌসুমের শুরুতে পাট বিক্রি করে ভাল দাম পাচ্ছেন এ জেলার কৃষকেরা। ফলনও হয়েছে ভালো। জেলার হাট বাজার গুলোতে প্রতি মন পাট তিন হাজার টাকা থেকে তেত্রিশ শত টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। পাইকাররা বাড়ি বাড়ি গিয়েও পাট কেনায় ব্যস্ত সময় পার করছে। তাই ভালো ফলন ও আশানুরুপ দাম পেয়ে বিগত বছর গুলোতে লোকশানে পড়া কৃষকদের মুখে সন্তুষ্টির হাসি ফুটে উঠেছে। বর্তমানে দেশে পলিথিনের ব্যবহার কমিয়ে পাট ও পাটজাত দ্রব্যের ব্যবহার বাড়াতে সরকারিভাবে উদ্যোগ নেওয়ার ফলে আবারো সুদিন ফিরেছে কৃষকদের ঘরে। কৃষি বিভাগের তদারকিতে হরিণাকুন্ডু উপজেলায় চলতি বছর বিশেষ প্রনোদনা দিয়ে কৃষকদের পাট চাষে উৎসাহিত করা হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় পাটে বাম্পার ফলন হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here