মহেশপুরে স্বামী শাশুড়ীর অত্যাচারে গৃহবধূর মৃত্যু।  ঘাতক স্বামী ও শাশুড়ি জনতার হাতে আটক।

378
মহেশপুরে স্বামী শাশুড়ীর অত্যাচারে গৃহবধূর মৃত্যু।  ঘাতক স্বামী ও শাশুড়ি জনতার হাতে আটক।
শহিদুল ইসলাম ঝিনাইদহ মহেশপুর থেকেঃ-
ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলার নেপা ইউপির সলেমানপুর হটাৎ পাড়া গ্রামে বহুল আলোচিত ও বহু অপকর্মের হুতা ঘাতক সুফিয়া খাতুন ও তার ছেলে আজিজুল হক স্ত্রী লিমা খাতুনের হত্যার অপরাধে এলাকাবাসী তাদেরকে আটক করে মহেশপুর থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছেন। এবং ময়না তদন্তের জন্য ঘটনাস্থল থেকে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে মহেশপুর থানায় রাখা হয়েছে।
নেপা ইউপি সদস্য সায়রা খাতুন জানান বিয়ের পর থেকে মা ও ছেলে দুজনে মিলে মেয়েটাকে বিভিন্ন সময় পাশবিক নির্যাতন করে আসছিলো এবং পরিকল্পিত ভাবে খাদ্যের সাথে কিছু খাওয়ায়ে এধরণের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে এলাকায় অভিযোগ উঠে আসছে।
এছাড়া গ্রামবাসী জানান দুর্ধর্ষ মহিলা সুফিয়া খাতুনের বিরুদ্ধে এলাকায় বিভিন্ন সময় মিথ্যা মামলা ও অভিযোগ দায়ের করে টাকা পয়সা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। মিথ্যা ও হয়রানি মুলক মামলার ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পারে না। এলাকাবাসীর দাবী নিরিহ ও গরীব অসহায় মেয়েটিকে তারা মা ছেলে মিলে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে। এব্যাপারে তাদেরকে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছে।
এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য মহেশপুর থানায় রাখা হয়েছে।
উল্লেখ্য গত ৭ আগস্ট মেয়েটিকে নিয়ে মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক গন তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর সদর হাসপাতালে পাঠায় সেখানে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাহারা ঢাকায় নিতে বলেন। পরিবারের লোকজন অসহায় হয়ে নিজ বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে চলে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here