ঝিনাইদহে ডাঃ রাজিবুল ইসলামের গবেষণায় দুধসর পাতার রসে করোনামুক্তি হচ্ছে বলে দাবী

1530

ঝিনাইদহে ডাঃ রাজিবুল ইসলামের গবেষণায় দুধসর পাতার রসে করোনামুক্তি

নবাব শিকদার, ঝিনাইদহ অনলাইনঃ
দুধসর পাতার রসে করোনা থেকে মুক্তির দাবি করেছেন ঝিনাইদহের আয়ুর্বেদ চিকিৎসক রাজিবুল ইসলাম। মাত্র ৩-৪ দিন নিয়মিত এই পাতার রস সেবন করে করোনায় আক্রান্তরা সুস্থ হয়েছেন বলে দাবি তার। শতাধিক করোনা রোগী তার চিকিৎসায় সুস্থ হয়েছেন বলে জানান তিনি।

ডা. রাজিবুল ইসলাম হরিণাকুণ্ডু উপজেলার শিতলী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক আবু বকর মণ্ডলের ছেলে। তিনি ইউনানি মেডিসিন ও সার্জারি বিষয়ে স্নাতক ও জনস্বাস্থ্য বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নিয়েছেন। বর্তমানে তিনি ঝিনাইদহ শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ‘বিকল্প চিকিৎসা কেন্দ্র’ নামে একটি ইউনানি-আয়ুর্বেদ চিকিৎসা ও গবেষণা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করে সেখানেই চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন।

ডা. রাজিবুল জানান, বিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার শুরু থেকেই তিনি দুধসর পাতা নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। উদ্ভিদটি দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভিন্ন ভিন্ন নামে পরিচিত। এর বৈজ্ঞানিক নাম ঊঁঢ়যড়ৎনরধ হবৎরভড়ষরধ। এটি ঊঁঢ়যড়ৎনরধপবধব পর্বের উদ্ভিদ। করোনামুক্তি ছাড়াও এই পাতার রসে নানা রোগমুক্তি মিলছে। এর মধ্যে অ্যাজমা ও নিউমোনিয়া উল্লেখযোগ্য। এছাড়া এই পাতার রসে জ্বর ও সর্দি-কাশিও ভালো হয়। যে কোনো ধরনের ছত্রাকনাশক হিসেবেও ঔষধি গুণসমৃদ্ধ এই গাছের পাতা কার্যকর ভূমিকা রাখে। এই গাছের পাতার অন্তত সাতটি উপকরণ করোনার জীবাণুর বিরুদ্ধে কাজ করে। আর এই সাতটি উপকরণের তিনটিতে রয়েছে অ্যান্টিভাইরাল কার্যকারিতা। দুধসর গাছের পাতা ভালো করে ধুয়ে পানের মতো চিবিয়ে রস খেতে হয়। দিনে তিনবার এভাবে দুই থেকে তিনটি পাতার রস পানে করোনা রোগীর অক্সিজেন স্যাচুরেশন বেড়ে ৯০-এর ওপরে পৌঁছায়। এতে আক্রান্তরা দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন। এছাড়া এর সঙ্গে দিনে অন্তত ৩-৪ বার লেবুর রস, ১-২ চা চামচ আদার রস, প্রয়োজন মতো দারুচিনি, তেজপাতা, লবঙ্গ, আদা ও ষষ্টিমধু খাওয়া এবং কালিজিরা কাপড়ে মুড়িয়ে নাক দিয়ে নিঃশ্বাস টানা এবং ইউক্যালিপ্টাস গাছের পাতা ও ফুল সিদ্ধ বাষ্প টানার পরামর্শও দেন। করোনার প্রচলিত চিকিৎসার সঙ্গে এই পাতার রস খেলেও কোনো সমস্যা নেই বলে জানান তিনি। কালিগঞ্জ সরকারি মাহাতাব উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক এম ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘আমার এক আত্মীয় করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। আমি লোকমুখে শুনে ডা. রাজিবের কাছে গেলে তিনি আমাকে দুধসর গাছের পাতার রস খাওয়াতে বলেন। প্রতিদিন তিনবার দুটি করে পাতার রস খাওয়ানোর পর ওই রোগী ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠেন।’
ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী অর্ণব বিশ্বাস জানান, তিনি তার বাবা-মাসহ পরিবারের চার সদস্য ১০ দিন আগে করোনায় আক্রান্ত হন। পরে খোঁজ পেয়ে তিনি ডা. রাজিবের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি দুধসর পাতা, কাশির জন্য হারবাল সিরাপ ও হারবাল চা দেন। তার এই ওষুধে তারা পুরো পরিবার এখন প্রায় সুস্থ।

ডা. রাজিবুল ইসলাম বলেন, ‘আমি করোনার শুরু থেকেই এ নিয়ে গবেষণা করছি। প্রথমে মানুষ এটা বিশ্বাস না করলেও এই চিকিৎসায় করোনা রোগী ভালো হচ্ছে জেনে এখন মানুষ আসছেন।
করোনায় আক্রান্ত শতাধিক রোগীকে এ পর্যন্ত দুধসর গাছের পাতার রস খাওয়ার পরামর্শসহ অন্যান্য উপসর্গের জন্য আরও কিছু হারবাল ওষুধ দিয়েছি। প্রত্যেক রোগীই এই চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here