ঝিনাইদহে কমিউনিটি ক্লিনিকে তালা, সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা

179

ঝিনাইদহে কমিউনিটি ক্লিনিকে তালা, সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা
তরিকুল ইসলাম তারেক: ২৫-০৭-২০২১ রবিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১১টা পর্যন্ত শ্রীফলতলা গ্রামের বাবর আলী(৭০) ,মঙ্গল মন্ডল (৬০), রাজিয়া খাতুন(৫৫), নাম প্রকাশ না করা শর্তে আরও তিন জন ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার রঘুনাথপুর ইউনিয়নের শ্রীফলতলা কমিউনিটি ক্লিনিকে অবস্থান করতে দেখা যায়। চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সবারই এক কথা, কোনো দিন এখানে ঠিকমত তারা ডাক্তারকে পান না। শনি থেকে বৃহস্পতিবার এই ছয়দিন সকাল ৯ নয়টা থেকে বিকেল তিনটা পর্যন্ত কমিউনিটি ক্লিনিক খোলা থাকার কথা। কিন্তু তারা ঠিকমত আসেন না। তবে মাঝে মাঝে সেবা দেয়ার কার্যক্রম চলে সকাল ১০ থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত। গ্রামের স্থানীয় অধিবাসীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, যেখানে স্বাস্থ্য সহকারীরা রয়েছেন, তারা কমিউনিটি ক্লিনিকে বসে সেবা দেয়াকে অতিরিক্ত ঝামেলা বলে মনে করেন। তাই তারা মানুষের সাথে খারাপ আচরণ করে থাকে। অনেকই অভিযোগ করে জানান, বিনামূল্যে সেবা ও ওষুধ দেয়ার হয় শুনেছি কিন্তু দুই টাকা করে নেয়া হচ্ছে। জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে দেশব্যাপী ২০১৩ সাল থেকে চালু করা হয় কমিউনিটি ক্লিনিক। সুষ্ঠু নজরদারির অভাবে স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এলাকাবাসী। জনগণের স্বাস্থ্যসেবা অনেকটাই মুখ থুবড়ে পড়েছে। প্রতিটি ক্লিনিকে আছেন মাত্র একজন হেলথ প্রোভাইডার। স্থানীয়দের অভিযোগ, সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা না থাকায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা নির্দিষ্ট সময়ে ক্লিনিকে না এসে ব্যক্তিগত কাজে ব্যস্ত থাকেন । এবিষয়ে উক্ত ক্লিনিক কর্মকর্তা স্বপ্না খাতুনকে মোবাইল করলে তিনি বলেন, আমি অসুস্থ্য তাই ছুটিতে আছি। ক্লিনিকে শুধু কি আপনি দায়িত্বে আছেন ? জানাতে চাইলে তিনি বলেন প্রায় দেড় মাস ধরে অন্যরা আসেন না। একেক জনের দায়িত্ব একেক রকম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here