মহেশপুরে মানুষের সচেতনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

23

মহেশপুরে মানুষের সচেতনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

উবাইদু্র খান, মহেশপুর, ঝিনাইদহ:

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় লকডাউন শিছিলে ২য় দিন আজ। মহেশপুর উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সাথে সাথে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

কিন্তু মানুষের ভিতরে যেভাবে সচেতনতা দরকার ছিল। সেইভাবে সচেতনতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। বাজার ঘাটে চায়ের দোকানে বিভিন্ন জায়গাতে কাঁচামালের আড়টে লক্ষ্য করা যাচ্ছে মানুষের ভিড়। মুখে নেই অধিকাংশ মানুষের মাক্স।

লকডাউন শিতিলে চলাচল শুরু হয়েছে গণপরিবহন। বাসগুলোতে লক্ষ্য করা গিয়েছে উচ্চ পড়া ভিড়। সরকারের নিয়ম অনুযায়ী দুই সীটে একজন করে বসবে।

যাত্রীরা অভিযোগ তুলেছে বাস ভাড়া বেশি নেওয়ার। বাসের ডবল ভাড়া নেয়া হচ্ছে যার কারণে যাত্রীদের অসন্তুষ্টি লক্ষ করা যাচ্ছে।

শারাফাত হোসেন বলেন ,”এই ভাবে চলতে থাকলে । মানুষের শরীরে করোনা ভাইরাস ক্রমেই বাড়তে থাকবে এজন্য আমাদের সচেতন হওয়া দরকার”

হাসিবুর রহমান বলেন,” করোনার প্রাদুর্ভাব যেভাবে বাড়ছে সচেতনতা কোন বিকল্প নেই মাক্স হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। বেশি বেশি বাড়িতে থাকার অভ্যাস করতে হবে”

দোকানপাট, ব‍্যবসা প্রতিষ্ঠা,হোটেল সবই খোলা রয়েছে, নেই কোন সচেতনতা মূলক ব্যবস্থা। যেমন মাক্স, হ্যান্ড স্যানিটাইজার। কিছু কিছু দোকানে লেখা আছে নো মাক্স নো সার্ভিস নামেমাত্র লেখা আছে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে এই ভাবে যদি চলতে থাকে।তাহলে মহেশপুরের অবস্থান ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here