মহেশপুরের বাউলি গ্রাম লকডাউন ৬ ইউনিয়নে চলাচলে বিধিনিষেধ

39
মহেশপুরের বাউলি গ্রাম লকডাউন ৬
ইউনিয়নে চলাচলে বিধিনিষেধ
স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
সীমান্তের একটি গ্রামে একই পরিবারের ৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় গ্রামটি ৭ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষনা করেছে জেলা প্রশাসন। এছাড়া সীমান্তবর্তী ৬টি ইউনিয়নে মানুষ চলাচলে কঠোর বিধি নিষেদ আরোপ করা হয়েছে। ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক মোঃ মুজিবুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার থেকে এই নির্দেশনা কর্যকর হচ্ছে।
তিনি জানান, মহেশপুরের নেপা ইউনিয়নের বাউলি গ্রামের দুটি পরিবারে ছয়জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় গ্রামটি ৩ জুন থেকে ১০ জুন পর্যন্ত সাতদিনের লকডাউন ঘোষণা করে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। লকডাউন না মেনে কেউ আইন অমান্য করলে প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। একই সঙ্গে এসব বিধিনিষেধ কার্যকর করতে বৃহস্পতিবার থেকেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে মাঠে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নেপা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাহাবুল ইসলাম জানান, তার ওয়ার্ডের বাউলিয়া গ্রামের শাহবুল ইসলাম, শাহাবুলের স্ত্রী, মা, ছোট ভাই ও মেয়ে এবং পাশের বাড়ির রুহুলসহ মোট ছয়জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ১৪/১৫ দিন ধরে তারা হাসপাতালে ভর্তি আছে। ৮ নম্বর বাঁশবাড়ীয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মালেক মন্ডল জানান, ভারত থেকে প্রতিনিয়ত অবৈধভাবে বাংলাদেশে মানুষ ঢুকছে। তারা বেশির ভাগ সময় সীমান্তের বিভিন্ন গ্রামে আশ্রয় নিচ্ছে। এদের খুব কম সংখ্যাক অনুপ্রবেশকারী বিজিবির হাতে আটক হচ্ছে। তাদের শরীরে করোনাভাইরাস ধরাও পড়েছে। মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাশ^তীশীল জানান, মহেশপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী স্বরুপপুর, শ্যামকুড়, নেপা, কাজিরবেড়, যাদবপুর ও বাঁশবাড়ীয়া ইউনিয়নে মানুষ চলাচলে ১৫ দিনের বিধি নিষেদ কার্যকর হবে। মুদি, ঔষধের, চালর ও কাঁচামালের দোকান ছাড়া সব দোকান বন্ধ থাকবে। সেই সাথে ৬টি ইউনিয়নে কোন যাত্রীবাহী বাস চলাচল করতে পারবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here