ঝিনাইদহে রাতের আঁধারে গাছবাড়িতে দুর্বৃত্তের হানা

528

সাব্বির আহামেদ জুয়েল, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা উপজেলার লক্ষ্মণদিয়া গ্রামের দৃষ্টিনন্দন গাছবাড়িতে রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তরা হানা দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত (৯ এপ্রিল) মধ্য রাতে দুর্বৃত্তরা গাছবাড়ির সীমানা বেষ্টনীর তারের বেড়া কেটে ভিতরে ঢুকে কিছু সংখ্যক গাছ বিনষ্ট করেছে। যা গাছবাড়ি রক্ষার জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।
ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলার লক্ষনদিয়া গ্রামের গাছ বাড়ির কথা প্রায় সবার জানা। বিভিন্ন সময় হাজার হাজার দেশি-বিদেশি বৃক্ষপ্রেমীরা ছুটে এসেছে এই দৃষ্টিনন্দন গাছবাড়ি টা দেখার জন্য।
দেশীও গাছের পাশাপাশি বেলজিয়াম, পর্তুগাল, মালয়েশিয়া, ভারত, দুবাইসহ একাধিক দেশ থেকে গাছ এনেছেন গাছবাড়ি মালিক আমিনুল ইসলাম। বর্তমানে এ সংগ্রহশালায় নানা প্রজাতির প্রায় ৭ হাজার গাছ রয়েছে। প্রতি মাসেই গাছের সংখ্যা বাড়ছে। গাছবাড়িতে রিটা, নাগলিঙ্গম, অ্যামাজিন, লিলির মতো রয়েছে মূল্যবান গাছ।
গাছবাড়ির বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে গাছবাড়ির মালিক আমিনুল ইসলাম বলেন, গত এক মাস ধরে গাছবাড়ির উপর একটি কুচক্রী মহলের খারাপ দৃষ্টি পড়ছে। এর আগে গাছবাড়ির পরিচর্যা কাজে নিয়োজিত লোকদেরকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি, হুমকি দিয়ে তাদেরকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।
কিন্তু এতেও ক্ষান্ত হয়নি দুস্কৃতিকারীরা গত ৯ এপ্রিল রাতের আঁধারে নিরাপত্তা বেষ্টনীর তারের বেড়া কেটে কিছু সংখ্যক মূল্যবান গাছের চারা নষ্ট করছে।এই বিষয়ে প্রশাসনিক ভাবে হস্তক্ষেপ কামনা করেও এখন পর্যন্ত কোনও সাড়া মেলেনি বলে তিনি জানান।
তিনি আরও বলেন গাছবাড়ির জন্য লক্ষ্মণদিয়া গ্রামটি দেশের সবার কাছে পরিচিত পেয়েছে। কিন্তু গাছবাড়ি কেন্দ্রিক দুষ্কৃতিকারীদের বর্তমান কর্মকান্ডগুলো গাছবাড়ির জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি গাছবাড়ির বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ এর পাশাপাশি গাছবাড়ির আশে-পাশের জনসাধারণেরও সহায়তা কামনা করছেন।
উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতির কারণে বর্তমান গাছ বাড়ি সর্ব-সাধারণের জন্য বন্ধ রাখা হয়ছে। পুরোদমে চলছে নতুন করে গাছ লাগানোর কাজ। নতুন রুপে নতুন সাজে আবারও লক্ষনদিয়া গ্রামের দৃষ্টিনন্দন গাছবাড়ি ফিরে আসবে বৃক্ষপ্রেমীদের মাঝে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here