মানবিকে সদস্য হলো ঝিনাইদহের কৃতিসন্তান অভিনেতা দীপু ইমাম

636

টিপু সুলতান বারী,হরিণাকুন্ডুঃ

আজ মানবিকে সদস্য হলো ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুন্ডু উপজেলার আদর্শ আন্দুলিয়া গ্রামের দেশ বরণ্য কৃতি সন্তান বিখ্যাত অভিনেতা দিপু ইমাম । দীপু ইমাম হলো “ঢাকা এটাক” সিনেমার নেয়ামত । আপনারা চিনবেন তাকে নিশ্চয় ।২০২১ এ মুক্তি পাবে তার অভিনিত ছবি- মিশন এক্সট্রিম, অপারেশন সুন্দরবন, ঢাকা ২০৪০ ও গিরগিটি ।একটু পিছনে ফিরে যাই । ১৯৯০ সালে দীপুরা ৭/৮ বন্ধু ১০ কিমি কাঁদার রাস্তায় বাইসাইকেল চালিয়ে আমার গ্রামের বাড়িতে আসতো প্রাইভেট পড়তে । এসে আমার টিনের ঘরের মাটির পিড়েয় পাটি পেড়ে বসে পড়তো । তখন ওরা ইন্টারমিডিয়েট পরীক্ষার্থী । আমি পড়াতাম ইংরেজি ।টেন্স থেকে শুরু করে হাতে ধরে ব্যাসিক ইংরেজি শিখাতাম । আমি তখন যুবকই । ওদের সাথে আমার ছাত্রের চেয়েও অধিক সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল । সেই থেকে ওরা সবাই বিশেষ করে দীপু আমার মনের মধ্যেই আছে । দীপুর রক্ত বড়ই অভিজাত । শ্রীপুরের বিখ্যাত জোয়ারদার পরিবারের হেফাজ উদ্দীন জোয়ারদার ওর নানা আর আন্দুলিয়ার অভিজাত মিয়া বাড়ির ইমান আলী মিয়া ওর দাদা । ১৯০০ সালের গোড়ার দিকে দীপুর দাদা-নানা যখন কলকাতায় চাকরি করতো, তখন এই এলাকায় কোনো স্কুলই ছিলনা, কলেজ তো দূরের কথা । দীপুর আব্বার নাম সরফরাজ মোঃ বাকী ইমাম । বড় ভাল সাদা মনের মানুষ ছিলেন ।দীপুর আর একটি পরিচয় আছে । সে ফুটবল দলের খুবই নামকরা গোল রক্ষক ছিল । ভলি বল দলেরও খুবই নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় ছিল । দীপুর ইমিডিয়েট বড় ভাই রাহবর ইমাম লুনারও খুবই উঁচুমানের ফুটবলার ছিল । ভাল ছেলে দীপুর জন্য দোয়া রইল– সে জয় করুক মিডিয়া জগত ।বাংলাদেশের অসংখ্য গুণী অভিনেতা অভিনেত্রীদের সাথে দিপু অভিনয় করেছে। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য – মামুনুর রশীদ, তারিক আনান খান, রাইসুল ইসলাম আসাদ, খালেদ খান, নায়ক রিয়াজ, আরিফিন শুভ, সিয়াম, রোশান, তাসকিন, এবিএম সুমন, মিলন, চঞ্চল চৌধুরী, শতাব্দী ওয়াদুদ, গাজী রাকায়েত, আজাদ আবুল কালাম, সাইদ বাবু, নায়িকা মাহী, নুসরাত ফারিয়া, পরী মনি, মম, সোহানা সাবা, তিসা, রুনা খান, শবনম ফারিয়া, পুর্নিমা বৃষ্টি, বলিউডের দর্শনা বনীক ও চেন্নাইয়ের অভিনেত্রী তুয়া উল্লেখযোগ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here