উৎসব মুখর পরিবেশে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে হরিণাকুন্ডু পৌর নির্বাচন

286

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে ৩০ জানুয়ারী,শনিবার কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনাই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোটগ্রহণ শুরুর সঙ্গে সঙ্গে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। ভোটগ্রহণের শুরুতেই প্রত্যেক ভোটকেন্দ্রে নারী ভোটারদের রেকর্ডসংখ্যক উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।
সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রতিটি কেন্দ্রেই বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়। এছাড়া নির্বাচনী এলাকায় র‌্যাব, পুলিশ, আনসার, বিজির সমন্বয়ে মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স নিয়মিত টহল প্রদান করে। সুষ্ঠু নির্বাচন দেখভালের জন্য কেন্দ্রে কেন্দ্রে সার্বক্ষণিক নির্বাহী ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা ছিলেন তৎপর। ফলে ছোট খাটো অপ্রীতিকর কিছু দূর্ঘনার মধ্যেই তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।
কুয়াশা ঢাকা শীতের সকালে শিশির ভেজা স্রোতকে উপেক্ষা করেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে নারী-পুরুষসহ সব বয়সী ভোটারদের ঢল ছিল। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে অপেক্ষা করে ভোট দিতে দেখা গেছে। তবে শান্তিপূর্ণ এই পরিবেশের মধ্যে বেশ কয়েক যায়গায় কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে।
এদিকে বেলা ১০ ঘটিকায় নৌকা প্রতীকের প্রধান এজেন্ট সাগর আলী ৩৫ পিতা মোঃ সাত্তার আলী মান্দার তলা অঞ্চলের ভোটকেন্দ্র থেকে নৌকার এজেন্টকে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে ৪ থেকে ৫ স্থানে আঘাত করে রক্তাক্ত করেছে দূর্বৃত্ত্বরা রিপোর্ট লেখা পির্যন্ত জানা গেছে তিনি কুষ্টিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে বলে জানা গেছে ।
এছাড়াও জেলা যুবলীগের কনভেনার রাজু আহমেদ পিতা রুস্তম আলী ৯ নং কেন্দ্রে অনাধিকার প্রবেশের দায়ে ৫০০০/টাকা জরিমানা সহ ৬ মাসের জেল জরিমানা করেন‚
ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজজেমান এর ভ্রাম্যমাণ আদালত এ আদেশ দেন।
এদিকে হরিণাকুণ্ডু থানার অফিসার ইনচার্জ এঘটনার সত্যতা স্মীকার করেন ।
উল্লেখ্য হরিনাকুণ্ডু বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২ জন ছাত্রী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্কুল & কলেজের এবং শিশুকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী অন্তরা খাতুন(১৪)আইডি নং ২৮৪৫০০৫ পিতা হাসেম আলী তিনি কানিজ ফাতেমা র ভোট দিতে গিয়ে গ্রেপ্তার করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরবর্তীতে গ্রেপ্তারকৃতদের মুচলেকা দিয়ে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয় ।
বেসরকারি ফলাফলে ৯টি কেন্দ্রের ঘোষিত ফলাফলে মোঃ ফারুক হোসেন ২৪৩৪ ভোটে এগিয়ে। হরিণাকুণ্ডু পৌরসভায় বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী ফারুক হোসেন। তিনি নৌকা মার্কায় দলীয় প্রতীকে ৭ হাজার ৩৪৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন।
তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র মেয়ের প্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক ও আ’ লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম টিপু মল্লিক জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৯১৩ ভোট। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হরিণাকুণ্ডু পৌর সভাপতি ও দলীয় প্রার্থী মোঃ নাসির উদ্দীন (হাতপাখা) ৫০৬ ভোট পেয়েছেন। এবং পৌর বিএনপি সভাপতি দলীয় প্রার্থী মোঃ জিন্নাতুল হক খান (ধানের শীষ) ১১৩৮ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন।
নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটিার্নিং অফিসার নুর উল্লাহ ভোটের এ ফলাফল ঘোষণা করে বলেন, হরিণাকুণ্ডু পৌরসভায় শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here