এবার সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হিসেবেও পাশ করলেন এসডি লাল

93

বাংলাদেশ টেলিভিশন কর্তৃক আয়োজিত “সংগীতশিল্পী নির্বাচনী পরীক্ষা-২০১৯”এ সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হিসেবেও পাশ করলেন ঝিনাইদহের কৃতিসন্তান সাধন লাল দেবনাথ (এস.ডি.লাল)। তিনি কালীগঞ্জের চাঁচড়া গ্রামের সন্তান।৩১ই ডিসেম্বর, তিনি বিটিভির সরকারি সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে পাশ করেছেন।এর পূর্বে গত ২৭ ডিসেম্বর,বিটিভির ঢাকা কেন্দ্র থেকে প্রতিযোগিতায় উত্তীর্ণদের তালিকায় লোকসংগীত শিল্পী হিসেবে সাধন লাল দেবনাথের নাম নথিভুক্ত করা হয়। শিল্পী এস.ডি.লাল ধ্রুব পরিষদ এবং সরকারি সংগীত কলেজ থেকে বি মিউজ,এম মিউজ পাস করেছেন। এছাড়া তিনি চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালক,কণ্ঠশিল্পী ও সুরকার এবং “বিশ্ববাংলা সাংস্কৃতিক সংসদের” চেয়ারম্যান হিসেবে খুবই প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করছে।এসডি লাল সাংবাদিকদের জানান, বিটিভি কর্তৃক আয়োজিত নির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হলে কাউকে বাংলাদেশ টেলিভিশনের সংগীত, নাটক, নৃত্য, সংবাদ, অনুষ্ঠান ঘোষণা/উপস্থাপনা ইত্যাদি ক্ষেত্রে অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করা হয় না।। একারণে প্রতিযোগিতায় উত্তীর্ণ হতে পেরে সত্যি আমি অনেক খুশি।এসডি লাল আরো জানান,পরম করুনাময় সৃষ্টি কর্তার করুনা, পিতা মাতা, শিক্ষা গুরু এবং চলার পথের সম্মানিত কিছু মানুষের ভালবাসা ও সহযোগিতায় আমি আজ এই পর্যন্ত পৌঁছাতে পেরেছি।২০২০ সাল সবার জন্য অভীশাপস্বরূপ হলেও এই সাল আমার জন্য আশির্বাদ। আমি বাংলাদেশ টেলিভিশনে সুরকার ও সংগীত পরিচালক হিসেবে পাস করেছি। আমার শিক্ষা গুরু এবং সকলের নিকট আমি ঋনী। সকলের ভালোবাসা চাই।

বাংলাদেশ টেলিভিশন কর্তৃক আয়োজিত “সংগীতশিল্পী নির্বাচনী পরীক্ষা-২০১৯”এ সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হিসেবেও পাশ করলেন ঝিনাইদহের কৃতিসন্তান সাধন লাল দেবনাথ (এস.ডি.লাল)। তিনি কালীগঞ্জের চাঁচড়া গ্রামের সন্তান।৩১ই ডিসেম্বর, তিনি বিটিভির সরকারি সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে পাশ করেছেন।এর পূর্বে গত ২৭ ডিসেম্বর,বিটিভির ঢাকা কেন্দ্র থেকে প্রতিযোগিতায় উত্তীর্ণদের তালিকায় লোকসংগীত শিল্পী হিসেবে সাধন লাল দেবনাথের নাম নথিভুক্ত করা হয়। শিল্পী এস.ডি.লাল ধ্রুব পরিষদ এবং সরকারি সংগীত কলেজ থেকে বি মিউজ,এম মিউজ পাস করেছেন। এছাড়া তিনি চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালক,কণ্ঠশিল্পী ও সুরকার এবং “বিশ্ববাংলা সাংস্কৃতিক সংসদের” চেয়ারম্যান হিসেবে খুবই প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করছে।এসডি লাল সাংবাদিকদের জানান, বিটিভি কর্তৃক আয়োজিত নির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হলে কাউকে বাংলাদেশ টেলিভিশনের সংগীত, নাটক, নৃত্য, সংবাদ, অনুষ্ঠান ঘোষণা/উপস্থাপনা ইত্যাদি ক্ষেত্রে অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করা হয় না।। একারণে প্রতিযোগিতায় উত্তীর্ণ হতে পেরে সত্যি আমি অনেক খুশি।এসডি লাল আরো জানান,পরম করুনাময় সৃষ্টি কর্তার করুনা, পিতা মাতা, শিক্ষা গুরু এবং চলার পথের সম্মানিত কিছু মানুষের ভালবাসা ও সহযোগিতায় আমি আজ এই পর্যন্ত পৌঁছাতে পেরেছি।২০২০ সাল সবার জন্য অভীশাপস্বরূপ হলেও এই সাল আমার জন্য আশির্বাদ। আমি বাংলাদেশ টেলিভিশনে সুরকার ও সংগীত পরিচালক হিসেবে পাস করেছি। আমার শিক্ষা গুরু এবং সকলের নিকট আমি ঋনী। সকলের ভালোবাসা চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here