সুরাট গ্রামের সেই অদ্ভুত ব্রিজের দুই পাশে অবশেষে রাস্তা নির্মান

183

ঝিনাইদহের সদর উপজেলার সুরাট গ্রামের সেই অদ্ভুত ব্রিজের দুই পাশে অবশেষে রাস্তা নির্মান করা হয়েছে। ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের উদ্যোগে এই রাস্তা নির্মান করা হয়। এর আগে এই ব্রিজ নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়। খবরে বলা হয় সেখানে রাস্তা নেই তবু ১৬ লাখ ৩১ হাজার টাকা ব্যায়ে নির্মাণ করা হয় ব্রিজ। ব্রিজটি ধান শুকানোর কাজে ব্যবহার করে গ্রামবাসি। খবরটি কতৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর হলে দ্রæত ব্রিজের দুই পাশে রাস্তা নির্মানের কাজ শুরু করে পিআইও অফিস। রাস্তাটি নির্মিত হওয়ায় ব্রিজটি প্রাণ ফিরে পেলো। সরেজমিন দেখা গেছে, সুরাট গ্রামের ঝাপরের খালের উপর এক পেয়ে পথ ছিল। ব্রিজটি নির্মানের ফলে সে পথও বন্ধ হয়ে যায়। সেখানে ১৬ লাখ ৩১ হাজার ৩২৫ টাকা ব্যয়ে ২০ ফুটের ব্রিজটি নির্মাণ করেছে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। নির্মাণ কাজটি বাস্তবায়ন করে ঝিনাইদহের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান জেন্টস ফ্যাশান। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এই কাজের টেন্ডার হয়। তৎকালীন পিআইও শুভগত এই অদ্ভুত ব্রিজের রুপকার ছিলেন। তিনি কোন রাস্তা ব্যতিত সেখানে ব্রিজ নির্মানের উদ্যোগ গ্রহন করায় সরকারের ১৬ লাখ টাকা পানিতে পড়ে। অবশেষে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বদরুদ্দোজা শুভ ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নিউটন বাইনের প্রচেষ্টায় সেখানে রাস্তা নির্মানের কাজ শেষ হয়েছে। খবরের সত্যতা স্বীকার করে পিআইও নিউটন বাইন জানান, আমি আসার আগেই ব্রিজটি নির্মান করা হয়। আমরা এমন খবর পেয়ে জনস্বার্থে দ্রæত সেখানে রাস্তা করে দিয়েছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here